ঢাকা: রাত ৮:৪৪ মিনিট, বুধবার, ১৪ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ,গ্রীষ্মকাল, ২রা রমজান, ১৪৪২ হিজরি
দেশজুড়ে

মাঘ মাসের মাঝামাঝি সময়ে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে দেশের উত্তর-পশ্চিম জনপদে, তাপমাত্রা নেমেছে ৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে

দেশের উত্তর-পশ্চিম জনপদে বয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ

এএনবি নিউজএজেন্সী ডটকমনিজস্ব প্রতিবেদক, এএনবি নিউজএজেন্সী ডটকম: মাঘ মাসের মাঝামাঝি সময়ে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে দেশের উত্তর-পশ্চিম জনপদে, তাপমাত্রা নেমেছে ৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। রোববার কুড়িগ্রামের রাজারহাটে থার্মোমিটারের পারদ নেমেছে ৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা চলতি শীত মৌসুমে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

বাংলাদেশে শীতের দাপট মূলত চলে জানুয়ারি মাসজুড়ে। ডিসেম্বরের মাঝামাঝি ও মধ্য জানুয়ারিতে দুই দফা মৃদু শৈত্যপ্রবাহের পর জানুয়ারির শেষ এসে তৃতীয় দফা শৈত্যপ্রবাহ বইছে। সেই সঙ্গে পাতা ঝরার দিনও চলছে প্রকৃতিতে। বিদায়ের আগে কাঁপিয়ে দিয়ে যাচ্ছে শীত।

রোববার রাজশাহীতে সর্বনিম্ন ৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া চুয়াডাঙ্গা ও ঈশ্বরদীতে ৬ দশমিক ২, বদলগাছি ও সৈয়দপুরে ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, তেঁতুলিয়া, ডিমলা, যশোর আর শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা ছিল ৭ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। আর ঢাকায় থার্মোমিটারের পারদ নেমেছে ১১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান বলেন, কুড়িগ্রাম ও রাজশাহী অঞ্চলের উপর দিয়ে এখন তীব্র শৈত্য প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। আর ময়মনসিংহ, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের অন্যান্য এলাকা এবং টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, নিকলী, শ্রীমঙ্গল, খুলনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, বরিশাল ও ভোলা অঞ্চলের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। “এ শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে। চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগের তাপমাত্রা সোমবারও সামান্য কমতে পারে।” বড় এলাকা জুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে চলে এলে মৃদু; ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে হলে মাঝারি এবং ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে হলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বলে ধরা হয়।

Hur Agency

এমন আরো সংবাদ

হট নিউজটি পড়বেন?
Close
Back to top button