জাতীয়বিশেষ প্রতিবেদন

ঢাকার বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন অভিনেতা-নির্দেশক আলী যাকের

অভিনেতা-নির্দেশক আলী যাকের আর নেই

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম নিজস্ব প্রতিবেদক, এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম : রাজধানীর আগারগাঁওয়ের মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর এবং বনানীতে বিজ্ঞাপনী সংস্থা এশিয়াটিক থ্রি সিক্সটির কার্যালয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন পর্ব শেষে একাত্তরের এই কণ্ঠযোদ্ধার কফিন শুক্রবার বিকাল পৌনে ৫টার দিকে বনানী কবরস্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। জানাজা শেষে সেখানেই তাকে দাফন করা হয়। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার ভোরে মার যান আলী যাকের। তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। গত চার বছর ধরে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে আসা এই অভিনয় শিল্পীর শরীরের দুদিন আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। গত শতকের সত্তর থেকে নব্বইয়ের দশকে মঞ্চ আর টেলিভিশনে দাপুটে অভিনয়ের জন্য দর্শক হৃদয়ে স্থায়ী আসন নিয়ে আছেন একুশে পদকপ্রাপ্ত এই অভিনেতা।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রয়াত এই অভিনেতার মরদেহ শুক্রবার বেলা ১১টার পর শেরেবাংলা নগরে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি ছিলেন এ প্রতিষ্ঠানের অন্যতম ট্রাস্টি।

সেখানে একাত্তরের শব্দসৈনিক এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান জানিয়ে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। পরে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউট, ছায়ানট, থিয়েটার, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয় এ অভিনেতার প্রতি।

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের শ্রদ্ধা নিবেদন পর্ব শেষে আলী যাকেরের কফিন নিয়ে যাওয়া হয় বনানীতে তার কর্মস্থল এশিয়াটিক থ্রি সিক্সটি ডিগ্রির কার্যালয়ে। সেখানে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মো. ফাহিমুল ইসলাম। সব শেষে জানাজা ও দাফনের জন্য কফিন নিয়ে যাওয়া হয় বনানী কবরস্থানে।

এমন আরও সংবাদ

Back to top button