ঢাকা: বিকাল ৩:২০ মিনিট, শুক্রবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ,গ্রীষ্মকাল, ১১ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি
জাতীয়বিশেষ প্রতিবেদন

বাংলাদেশে টানা দ্বিতীয় দিনেও নতুন কারও মধ্যে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েনি : আইইডিসিআর

টানা দ্বিতীয় দিনেও বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কারোও ধরা পড়েনি

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম নিজস্ব প্রতিবেদক, এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম : আইইইডিসিআর ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা রোববার এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে নভেল করোনাভাইরাস মহামারীর সর্বশেষ পরিস্থিতি তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ১০৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে কারও মধ্যে নতুন করোনাভাইরাসেরর সংক্রমণ ধরা পড়েনি। তার মানে সর্বমোট আক্রান্তের সংখ্যা আগের মতই ৪৮ জন আছে।

“এর মধ্যে ১৫ জন সংক্রমণমুক্ত, সুস্থ হয়ে বাড়ি চলে গেছেন। নতুন করে কারও মৃত্যুর তথ্য না আসায় মৃতের মোট সংখ্যা আগের মতই পাঁচজন।”

আইইইডিসিআর পরিচালক জানান, ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষিত ১০৯টি নমুনার মধ্যে মহাখালীর ইন্সটিটিউট অব পাবলিক হেলথ (আইপিএইচ) ও চট্টগ্রামের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজের (বিআইটিআইডি) সংগৃহিত নমুনাও রয়েছে।

নিজের বাসা থেকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও ভিডিও কন্ফারেন্সের মাধ্যমে সংবাদ সম্মেলনে যোগ দেন।

তিনি বলেন, নতুন করোনাভাইরাস শনাক্তে পিসিআর টেস্টের দেশে এখনর ৪৫ হাজার কিট আছে। আরও প্রায় ৮৫ হাজার কেনার আদেশ দেওয়া হয়েছে।

নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে বাংলাদেশের প্রস্তুতি ছিল না এমন অভিযাগ নাকচ করে তিনি বলেন, “কিটের বিষয়েও অনেকরকম কথাবার্তা শুনেছি। এগুলো পর্যাপ্ত আছে। পিপিই আছে কিনাকথা উঠেছে । আমি মনে করি, পিপিই নিজে শঙ্কা প্রকাশ করার দরকার নেই।

“ইতিমধ্যে প্রায় ৩ লাখ পিপিই বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রতিদিনই প্রায় ২০ থেকে ৩০ হাজার পিপিই পাওয়া যাচ্ছে। এপ্রিলের মধ্যে প্রায় পাঁচ লাখ পিপিই পাওয়া যাবে।”

নভেল করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের নেওয়া পদক্ষেপে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রশংসা করেছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী দাবি করেন।

“আমরা গতকাল তাদের সঙ্গে বসেছিলাম। তারা আমাদের কিছু গাইডলাইন দিয়েছে। ডব্লিউএইচওর সঙ্গে আরও দশটি দেশ ছিল তারাও বলেছেন আমরা যে প্রস্ততি নিয়েছি তা সন্তোষজনক। এমনকি ইউএনও সন্তুষ্টি জানিয়েছে।”

জাহিদ মালেক বলেন, বাংলাদেশে যে পরিমাণ ভেন্টিলেটর আছে তা পৃথিবীর অনেক বড় বড় দেশেও থাকে না। এখন পাঁচশর মতো ভেন্টিলেটর বিভিন্ন হাসপাতালে আছে।

“আরও আড়াইশ ভেন্টিলেটর এসেছে যেগুলো স্থাপন করা হচ্ছে। আরও সাড়ে তিনশ ভেন্টিলেটর আমদানি প্রক্রিয়ায় আছে।”

অনেক আগেই প্রস্তুতি নিয়েছিল বিধায় বাংলাদেশ ভালো আছে মন্তব্য করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “ইউরোপ-আমেরিকার অবস্থা কেমন তা আপনারা জানেন। সে বিষয়ে আমি আর বিস্তারিত আলাপ করতে পারছি না।”

Hur Agency

এমন আরো সংবাদ

হট নিউজটি পড়বেন?
Close
Back to top button