ঢাকা: দুপুর ২:১০ মিনিট, শুক্রবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ,গ্রীষ্মকাল, ১১ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি
তথ্যপ্রযুক্তিবিশেষ প্রতিবেদন

বিক্রমের আছড়ে পড়ার প্রমাণ মিলেছে নাসার ছবিতে এবং চন্দ্রপৃষ্ঠে

চন্দ্রযান ২

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম

নিউজডেস্ক,এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম: টুইটারে নাসা চাঁদের বুকে বিক্রমের আছড়ে পড়ার জায়গার কিছু ছবি পোস্ট করেছে বলে জানায় বিবিসি।

নাসার পক্ষ থেকে বলা হয়, নাসার একটি মহাকাশযান থেকে তোলা নতুন কিছু ছবিতে চন্দ্রপৃষ্ঠে বিক্রমের যেখানে নামার কথা ছিল ওই জায়গাটি দেখা গেলেও ‘বিক্রমের সুনির্দিষ্ট অবস্থান এখনো জানা যায়নি’।

ছবিগুলো সবই রাতে তোলা, তাই বিক্রমকে দেখা যাচ্ছে না। চাঁদে এখন দীর্ঘ শীতের রাত চলছে।

পৃথিবী থেকে দীর্ঘ ৪৭ দিনের যাত্রা শেষে গত ৭ সেপ্টেম্বর চাঁদের মাটি থেকে মাত্র ২ দশমিক ১ কিলোমিটার দূরে থাকতেই চন্দ্রযান-২ এর ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে ইসরোর কন্ট্রোলরুমের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

বিক্রমের চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে নামার কথা ছিল। চাঁদের ওই অংশটি এখনও মানুষের কাছে অজানা। সেখানে জমাট বরফ আকারে পানি থাকার বিষয়ে বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত হয়েছিলেন ভারতের চন্দ্রযান-১ অভিযান থেকে।

কথা ছিল, ঠিকঠাক পৌঁছাতে পারলে চন্দ্রযান-২ এর রোভার প্রজ্ঞান নতুন তথ্য পাঠাবে পৃথিবীতে। সেখান থেকে হয়ত জানা যাবে, চাঁদের বুকে কতটা পানি কী অবস্থায় আছে।

নাসার বিবৃতিতে বলা হয়, “বিক্রম যে জায়গায় আছড়ে পড়েছে সেটি চাঁদের দক্ষিণ মেরু থেকে ৬০০ কিলোমিটার দূরে।

“নাসার মহাকাশযান এলআরও গত ১৭ সেপ্টেম্বর ওই স্থান অতিক্রম করেছে এবং ওই এলাকার কিছু ছবি পাঠিয়েছে; যেগুলোর রেজ্যুলেশন খুব ভালো ছিল। তবে এখন পর্যন্ত ল্যান্ডারটি কোথায় আছে বা সেটির কোনো ছবি পাওয়া যায়নি।”

আগামী মাসে এলআরও আবারও একই জায়গার উপর দিয়ে উড়ে যাবে। তখন সেখানে পরিষ্কার ছবি পাওয়ার মত যথেষ্ট আলো থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন নাসার বিজ্ঞানীরা।

“এখন যে ছবিগুলো হাতে এসেছে সেগুলো অন্ধকারের মধ্যে তোলা। বেশিরভাগ জায়গায়ই তাই বিশাল বিশাল ছায়া দিয়ে ঢাকা। হয়তো বিক্রম কোনো ছায়ার আড়ালে ঢাকা পড়ে আছে। অক্টোবরে আলোর মধ্যে এলআরও যখন ওই জায়গা দিয়ে আবারও উড়ে যাবে তখন আমরা ছবি তোলার এবং বিক্রমকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করবো।”

Hur Agency

এমন আরো সংবাদ

Back to top button