খেলাধুলাবিশেষ প্রতিবেদন

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি ফাইনালে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান

ত্রিদেশীয় ক্রিকেট টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট ফাইনাল

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম

 

 

 

 

 

 

 

 

ক্রীড়া প্রতিবেদক, এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম: প্রাথমিক পর্বের নানা চড়াই-উৎরাই শেষে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট এখন শেষ ধাপে। ফাইনালে মঙ্গলবার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান। বিজয় মঞ্চে ট্রফি উঁচিয়ে ধরার লড়াইয়ে নামবেন সাকিব আল হাসান ও রশিদ খানের দল। খেলা শুরু যথারীতি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়।

ফাইনালের রোমাঞ্চে অবশ্য জল ঢেলে দিতে পারে বৃষ্টি। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বৃষ্টির শঙ্কা আছে দিনজুড়ে। শেষ পর্যন্ত খেলা না হলে যৌথভাবে বিজয়ী হবে দুই দল, নেই কোনো রিজার্ভ ডে।

বৃষ্টি সত্যিই বাগড়া দিলে, সমর্থক-অনুসারীদের জন্য যেমন হবে হতাশার, তেমনি হতাশা থাকবে দুই শিবিরেও। ট্রফি জয়ের আশা করছে যে দুই দলই।

টুর্নামেন্টের মাঝপথেও বাংলাদেশের জন্য সেই আশার ছবি ছিল ভীষণ বিবর্ণ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারতে হারতে কোনো রকমে জয় দিয়ে শুরু হয়েছিল টুর্নামেন্ট। পরের ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে লড়াইও করতে পারেনি দল। আফগানদের বিপক্ষে সেটি ছিল বাংলাদেশের টানা চতুর্থ টি-টোয়েন্টি হার। এই টুর্নামেন্টের আগে একমাত্র টেস্টে পরাজয় তো ছিলই। সব মিলিয়ে আফগানরা চলে গিয়েছিল যেন বাংলাদেশের ধরাছোঁয়ার বাইরে।

সেই ব্যবধান নাগালে এসেছে চট্টগ্রাম পর্বে। আফগানিস্তান সেখানে হেরেছে দুটি ম্যাচই। বাংলাদেশ জিতেছে দুটিই। জিম্বাবুয়েকে সহজে হারানোর পর শেষ ম্যাচে ধরা দিয়েছে আফগানদের বিপক্ষে বহু কাঙ্ক্ষিত জয়। পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থেকে তাই ফাইনালে খেলছে বাংলাদেশ।

তাতে দুই দলের টি-টোয়েন্টি বাস্তবতা বদলে যায়নি। আফগানিস্তান এখনও এই সংস্করণে এগিয়ে। তবে বাংলাদেশের ড্রেসিং রুমে এই বিশ্বাসটুকু ফিরেছে, আফগানদের হারানো যায়!

সেই বাস্তবতা জানেন বলেই ফাইনালের আগের দিন কোনো উচ্চাশা দেখাননি কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। বাংলাদেশ কোচের আশা, ফাইনালে যেন শতভাগ দিতে পারেন ক্রিকেটাররা। প্রচেষ্টায় কোনো ঘাটতি থাকলে জয়ের সম্ভাবনা দেখছেন না কোচ।

এমন আরও সংবাদ

Back to top button