ঢাকা: দুপুর ২:৪৫ মিনিট, শনিবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ,গ্রীষ্মকাল, ৫ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি
অর্থনীতিবিশেষ প্রতিবেদন

গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বাম জোটের হরতালে মিছিল, সড়ক অবরোধ

গ্যাসের দাম বৃদ্ধি

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকমনিজস্ব প্রতিবেদক, এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম: রোববার সকাল ৬টা থেকে এই হরতালে রাজধানীর পল্টন, প্রেসক্লাব, শাহবাগ এলাকায় থেমে থেমে বৃষ্টির মধ্যেই মিছিল করছেন সিপিবি, বাসদ, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, গণসংহতি আন্দোলনসহ জোটভুক্ত বাম সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা।

প্রগতিশীল ছাত্র জোটের কর্মীরা শাহবাগ এলাকায় সড়বে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করায় ওই মোড় হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

তবে রাজধানীর অন্যান্য এলাকায় যানবাহন চলছে স্বাভাবিকভাবে। হরতালের মধ্যে বিশৃঙ্খলা এড়াতে বিভিন্ন মোড়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন থাকতে দেখা গেছে।

আমাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি দীপক রায় জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের শতাধিক নেতাকর্মী মিছিল নিয়ে শাহবাগ চত্বরে অবস্থান নেন। পরে সেখানে তারা সমাবেশ শুরু করলে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল, ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি ইমরান হাবিব রুমন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সালমান সিদ্দিকী, ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা কলেজ শাখার সভাপতি জোবায়ের প্রধান এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

পরে বৃষ্টি শুরু হলে নেতাকর্মীরা বিভিন্ন দিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েন। তবে রাস্তার ওই অংশ হরতালকারীদেরই নিয়ন্ত্রণে ছিল।

আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক গোলাম মুজতবা ধ্রুব জানান, শাহবাগ মোড় বন্ধ থাকায় এলিফেন্ট রোডের শাহবাগমুখী যানবাহনগুলোকে কাঁটবন সিগন্যাল থেকে হাতিরপুর ও নীলক্ষেতের দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়।

হরতালের কারণে পল্টন এলাকাতেও বাসগুলোকে নির্ধারিত রুট ছেড়ে অন্য রাস্তা ধরে গন্তব্যে ছুটতে দেখা যায়। গুলিস্তান থেকে প্রেসক্লাবের সামনে দিয়ে চলাচলকারী গাড়িগুলো জিপিও মোড়ে এসে সচিবালয়ের পাশ ঘেঁষে হাই কোর্টের দিকে চলে যায়।

আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক কাজী মোবারক হোসেন জানান, জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তা এবং পল্টন মোড়ের কিছু অংশ দখল করে হরতালের সমর্থনে স্লোগান দেন হরতালকারীরা।

বাম জোটের শরিক সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সদস্য রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, “ঢাকাসহ সারা দেশে বিভিন্ন স্থানে আমাদের নেতাকর্মীদেরকে হরতাল পালনে বাধা দেওয়া হয়েছে। জয়পুরহাট, ময়মনসিংহ ও ঢাকায় কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে পরে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।”

গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে এবং কর্মসূচিতে ‘বাধা দেওয়ার’ প্রতিবাদে দুপুরের পর নতুন কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

বাম সংগঠনগুলোর এই হরতালে বিএনপি ও তাদের শরিক কয়েকটি দল সমর্থন জানালেও তাদের কর্মীদের এদিন মাঠে দেখা যায়নি।

ঢাকা মহানগর পুলিশের রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার বলেন, “হরতালের তেমন কোনো বিরূপ প্রভাব পড়েনি, যান চলাচল স্বাভাবিকই আছে।”

আর পল্টন থানার ওসি মাহমুদুল হক বলেন, তার এলাকতায় বিভিন্ন বাম সংগঠন রাস্তায় মিছিল করেছে।

“সকালে পল্টন মোড়ে একটা গাড়ি ভাঙচুরের শিকার হয়েছে। তবে পরে আর কোনো ঝামেলা হয়নি।”

সরকার গত ৩০ জুন সব পর্যায়ে গ্যাসের দাম গড়ে ৩২.৮ শতাংশ বাড়ানোর ঘোষণা দিলে তার প্রতিবাদে ৭ জুলাই দেশজুড়ে আধাবেলা হরতাল করার ঘোষণা দেয় বাম গণতান্ত্রিক জোট।

জোটের শরিক দলগুলো সরকারের ওই সিদ্ধান্তকে বর্ণনা করে ‘জনগণের পকেট কাটার’ আরেকটি ব্যবস্থা হিসেবে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জনগণকে সাথে নিয়ে ‘রাজপথে তীব্র আন্দোলন’ গড়ে তোলার হুঁশিয়ারি দেন।

এমনকি ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের শরিক ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননও গ্যাসের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির পেছনে ‘যৌক্তিক কারণ রয়েছে’ মন্তব্য করে সবাইকে তা মেনে নেওয়ার আহ্বান জানান।

Hur Agency

এমন আরো সংবাদ

Back to top button