জাতীয়বিশেষ প্রতিবেদন

পাঁচটি সমঝোতা স্মারক সই ভুটানের সঙ্গে

বাংলাদেশ ও ভুটানের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম

 

 

 

 

 

 

 

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম: শনিবার সকালে ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিংয়ের নেতৃত্বে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পর স্বাস্থ্য, কৃষি, নৌ পরিবহন, পর্যটন খাতে সহযোগিতা এবং জনপ্রশাসন খাতে প্রশিক্ষণের বিষয়ে এসব সমঝোতা স্মারক ও এসওপি সই হয়।

বৈঠকের বিস্তারিত সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক ও প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম।

শহীদুল হক বলেন, “ভুটানের সঙ্গে আমাদের খুবই গভীর ঐতিহাসিক সম্পর্ক। ভুটান প্রথম রাষ্ট্র যারা আমাদের স্বীকৃতি দেয়। তাই ভুটানের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক গাঢ়।

“পরবর্তী বছরগুলোতে সম্পর্কের আরও উন্নতি হয়েছে। ক্রমশই এ সম্পর্ক গভীর ও সম্প্রসারিত হচ্ছে। ২০১৭ সালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ভুটান সফরের পর বাণিজ্য বেড়েছে এবং মানুষে মানুষেও সম্পর্ক বাড়ছে।”

সফররত লোটে শেরিং সকাল ১০টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছলে তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান শেখ হাসিনা। এরপর দুই প্রধানমন্ত্রীর একান্ত বৈঠকের পর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হয়। এরপর দুই প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে এসব সমঝোতা ও এসওপি সই হয়।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, “বাংলাদেশের সঙ্গে ভুটানের সম্পর্কই যে গভীর হচ্ছে তা নয়; ব্যবসা ও পযটনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এর ব্যাপ্তিটাও বাড়ছে।”

ভুটানের সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তি বিষয়ে শহীদুল হক বলেন, বাংলাদেশ ভুটানের কাছে ১০টি পণ্যে কোটা ও শুল্কমূক্ত সুবিধা চেয়েছে আর ভুটান বাংলাদেশের কাছে চেয়েছে ১৬টি পণ্যে।

“ভুটান ডব্লিউটিওর সদস্য না হওয়ায় তাদের নিজস্ব কিছু আইন ও বিধিমালা আছে। তাই কোটামূক্ত, শুল্কমূক্ত সুবিধার প্রশ্ন উঠছে। এটা নিয়ে পজিটিভ আলোচনা হয়েছে। আমরা ধরে নিতে পারি যে এটা নীতিগত সম্মতি হয়েছে।”

এমন আরও সংবাদ

Back to top button