জাতীয়

নির্বাচনের আগে বড় ধরনের নাশকতার ষড়যন্ত্র হচ্ছে: আওয়ামী লীগ

নির্বাচনে নাশকতার ষড়যন্ত্র

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম

এএনবি নিউজএজেন্সি ডটকম: একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে প্রতিপক্ষ বিএনপি-জামায়াত জোট থেকে এই ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে দাবি করেছেন দলটির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো চেয়ারম্যান এইচ টি ইমাম।

আওয়ামী লীগ ও মহাজোট নেতা-কর্মীদের উপর বিএনপি-জামায়াতের ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’ অব্যাহত রয়েছে বলে ইসিতে নালিশও জানিয়েছে তারা।

মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের মিডিয়া উপকমিটির এক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ইমাম বলেন, “সংসদ নির্বাচনের আর মাত্র চার দিন বাকি। এই নির্বাচনকে ভণ্ডুল বা প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য নানামুখী ষড়যন্ত্র এখনও অব্যহত রয়েছে।”

নির্বাচনের প্রচার শুরুর পর এ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের ৫ জন নেতা-কর্মী নিহত হওয়ার তথ্য তুলে ধরে তিনি বলেন, “প্রতি মুহূর্তে বিএনপি-জামায়াত ক্যাডার কর্তৃক আমাদের প্রার্থীদের আক্রান্ত হওয়ার সংবাদ আমরা পাচ্ছি। শত শত নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর হয়েছে।

“একই সাথে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মধ্যে ভয়-ভীতি সৃষ্টি করা হচ্ছে এবং তাদের উপর হামলা করা হচ্ছে।”

“আমরা জানতে পেরেছি এবং সার্বিক কর্মকাণ্ড দেখে আমাদের মনে হচ্ছে, বিএনপি-জামায়াত নির্বাচনের পূর্বে দেশে বড় ধরনের একটি নাশকতামূলক হামলার পরিকল্পনা করেছে,” বলেন ইমাম।

নির্বাচন ঘিরে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আওয়ামী লীগ নেতারা করে এলেও তা প্রত্যাখ্যান করে আসছেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

বিএনপি নেতারা উল্টো বলছেন, ভোটারদের কেন্দ্রে যাওয়া ঠেকাতে আওয়ামী লীগ ভীতি সৃষ্টি করছে।

এইচ টি ইমাম বলেন, “মহাজোট ভোটারদের ভোটাধিকার প্রয়োগে কোনো ধরনের বাধা দেওয়াকে সমর্থন করে না।”

সেনাবাহিনী নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির পক্ষ থেকে যে বিবৃতি এসেছে, তার প্রতিক্রিয়ায় ইমাম বলেন, “সশস্ত্র বাহিনী সকল দলীয় রাজনীতির ঊর্ধ্বে। আমাদের সশস্ত্র বাহিনীকে নিয়ে ড. কামাল হোসেন যে লিখিত অনুশাসনমূলক বিবৃতি দিয়েছেন, সেটি সংবিধান ও আইনের পরিপন্থি।”

এদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশনে গিয়ে নালিশ দিয়ে আসে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য মো. আকতারুজ্জামানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল।

আখতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, “বিএনপি-জামায়াত জোট নির্বাচন সামনে রেখে কালো টাকা ছড়ানোর পাশাপাশি আওয়ামী লীগ ও মহাজোট নেতাকর্মীদের ওপর সশস্ত্র হামলাও করছে। আমাদের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করছে, মিছিলে হামলা চালাচ্ছে।”

বিএনপির অভিযোগের প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, “প্রতিদিন নিজেরা সহিংসতা সৃষ্টি করে উল্টো নির্বাচন কমিশনে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করছে; মিডিয়াতে লাগাতার মিথ্যাচার ও অপপ্রচার চালাচ্ছে।

“সত্য হচ্ছে, বিএনপি-জামায়াত জোট দেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা করছে। এমনকি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরও হামলা চালাচ্ছে।”

আকতারুজ্জামান বলেন, “নির্বাচনের আর কয়েকদিন বাকি। এখন পেট্রোল বোমা, গানপাউডার, আগুন সন্ত্রাস শুরু হওয়ায় আমাদের ২০১৪ সালের কথা মনে পড়ছে।”

 

এমন আরও সংবাদ

Back to top button